একই ইউনিয়নে ছেলে চেয়ারম্যান আর বাবা মেম্বার প্রার্থী

অনুসন্ধান ডেস্ক : আগামী ২৩ ডিসেম্বর ইউপি নির্বাচনে একটি ইউনিয়নে বাবা মেম্বার ও ছেলে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে ওই এলাকায় তুমুল আলোচনার ঝড় বইছে।রাজশাহীর বাঘায় চকরাজাপুর ইউ,পি নির্বাচনে ব্যতিক্রমী এ ঘটনা ঘটেছে। ওই ইউনিয়নে ছেলে রুবেল রানা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে  মনোনয়ন জমা দিয়েছেন আর বাবা আব্দুর রহমান জমা দিয়েছেন মেম্বার পদে । শনিবার উপজেলা নির্বাচন অফিসে মনোনয়নপত্র জমা দেন বাবা ও পুত্র। আব্দুর রহমান চকরাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক।

জানা যায়, ১৫টি গ্রাম নিয়ে চকরাজাপুর ইউনিয়ন। এই ইউনিয়ন চৌমাদিয়া ২নং ওয়ার্ড। ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৫৫৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৫১ ও নারী ভোটার ৩০৫ জন।

আব্দুর রহমান ২০১৬ সালে নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বর  হয়েছিলেন। তিনি ২০০৩ সালে ওয়ার্ডের মেম্বর ছিলেন। ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচনে আবারও তিনি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বর হতে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

আব্দুর রহমান জানান, আমি সব সময় মানুষের সেবা করার চেষ্টা করি। আমার ওয়ার্ডে কারও কোনো সমস্যা হলে তার বাড়িতে গিয়ে সমাধান করার চেষ্টা করি। ফলে গত নির্বাচনে আমাকে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বার নির্বাচিত করেছেন। এবার আশা করছি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বার হতে যাচ্ছি।

তার ছেলে বলেন, আমি চেয়ারম্যান পদে  মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। আশা করছি আগামী ২৩ ডিসেম্বর চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী হবো বলে আশা করছি।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মুজিবুল আলম জানান, রুবেল রানা চেয়ারম্যান পদে এবং আবদুর রহমান দর্জি মেম্বার পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ২৫ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ২৯ নভেম্বর, আপিল দায়ের ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ৩-৫ ডিসেম্বর, প্রত্যাহার ৬ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ৭ ডিসেম্বর এবং ভোটগ্রহণ ২৩ ডিসেম্বর।

 

চকরাজাপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৯ হাজার ৭১০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৪ হাজার ৯৫৬ ও নারী ৪ হাজার ৭৫৪ জন।

আরও পড়ুন...

বগুড়ায় চাপাতি-জিহাদী বইসহ গোপন বৈঠক থেকে ৭ শিবির কর্মী গ্রেফতার

বগুড়ায় RAB এর অভিযানে ১০ জুয়ারী আটক : মোবাইল কোর্টে ১শ দিনের জেল

শেরপুরে কাজীর বিরুদ্ধে উৎকোচ নিয়ে বাল্য বিয়ে রেজিস্ট্রির অভিযোগ